Archive for November 2013

উদ্যোগ : দুর্গন্ধনাশক ও জীবানুশোধক তৈরী


দুর্গন্ধনাশক ও জীবানুশোধক তৈরী
(Deodorant & Disinfectant)


উপকরণ
ক্যালসিয়াম হাইপোক্লোরাইট (Calcium Hypochlorite)-১৫ কেজি
লাইট সোডা অ্যাশ (Light Soda Ash)-১০ কেজি
পানি (Water)-৩০ লিটার

পদ্ধতি
৩০ লিটার পানিকে প্রথমে দুটি পাত্রে রাখুন। প্রথম পাত্রের পানির সঙ্গে ক্যালসিয়াম হাইপোক্লোরাইট মেশান আর দ্বিতীয় পাত্রের পানির সঙ্গে লাইট সোডা অ্যাশ মেশান। তারপর অপর একটি পাত্রে উভয় পাত্রের মিশ্রণটি ঢালুন এবং মেশান। তারপর থিতোতে দিন। উপরকার পরিস্রুত সলিউশনটি পলিথিন বা প্লাস্টিকের পাত্রে ভরুন।

ব্যবহারের নিদের্শ
এই সলিউশন সফট ড্রিঙ্কের বোতল, চীনেমাটির বাসন-পত্রাদি ধোওয়া, জীবানুমুক্ত ও দুর্গন্ধমুক্ত করার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : চীনেমাটির ও কাচের তৈরী বাসনপত্র ধোওয়ার জন্য মিশ্রণ


উদ্যোগ : চীনেমাটির ও কাচের তৈরী বাসনপত্র ধোওয়ার জন্য মিশ্রণ
(Dish & Glass Washing Compound)


উপকরণ
হাইগ্রেড সোডিয়াম সেস্কুইকাবোর্নেট (High grade Sodium Sesqui-carbonate)-৭ কেজি
ক্যালসিয়াম হাইপোক্লারাইট (Calcium Hypochlorite)-২ কেজি

পদ্ধতি
উভয় প্রকার পাউডার মিহি করে চালুনি দিয়ে ছেকেঁ নিয়ে একত্রে মেশাতে হবে। তারপর প্রয়োজনমত সিলোফেন পেপারে প্যাক করে বিক্রি করা চলবে।

ব্যবহারের নিদের্শ
৪.৪৫ লিটার জলের সঙ্গে এক বড়ো চামচের (Table Spoon) এক চামচ মিশ্রণটি মেশাতে হবে। এর দ্বারা চীনেমাটির তথা কাচের তৈরী বাসনপত্রাদি ধোওয়াও হবে এবং জীবাণুমুক্ত করাও সম্ভব হবে।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : স্যানিটারি দ্রব্যাদি পরিষ্কারক


উদ্যোগ : স্যানিটারি দ্রব্যাদি পরিষ্কারক
(Sanitary Household Cleaner)


উপকরণ
হাইড্রেটেড সোডিয়াম সেস্কুইকাবোর্নেট (Hydrated Sodium Sesqui-carbonate)-৫১.৯%
সোডিয়াম সোপ (Sodium Soap)-১.৫%
পাইন অয়েল (Pine Oil)-৩.১%
অক্সিক্লোস্টারিন অ্যাবজরপশান বেস (Oxychlosterin Absorption Base)-১.০%
অংশত হাইড্রেটেড ট্রাইসোডিয়াম ফসফেট (Partially Hydrated Trisodium Phosphate)-৪২.৫%

পদ্ধতি
বারবার চালুনি দিয়ে ছেঁকে নিয়ে মিহি অবস্থায় সকল দ্রব্যাদি একত্রে মেশাতে হবে। সারারাত মিশ্রণটি একত্রিত অবস্থায় রাখতে হবে।

ব্যবহারের নিদের্শ
সাধারনভাবে পরিষ্কার করার জন্য ৪.৫৫ লিটার উষ্ঞ পানির সাথে ১ বড় চামচ (Table Spoon) পাউডার মেশাতে হবে। অত্যন্ত দাগযু্ক্ত স্যানিটারী দ্রব্যাদি ধোওয়ার জন্য ৪.৫৫ লিটার উষ্ঞ পানির সাথে বড় চামচের দেড় চামচ পাউডার মেশাতে হবে।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : ওয়াশিং পাউডার


উদ্যোগ : ওয়াশিং পাউডার
(Washing Powder)


উপকরণ
অ্যানহাইড্রাস সোপ পাউডার (Anhydrous Soap Powder)-৬৭.৪৫%
সোডিয়াম ক্লোরাইড (Sodium Chloride)-১.১%
টেট্রা সোডিয়াম পাইরোফসফেট (Tetra Sodium Pyrophosphate)-৭.৪%
সোডিয়াম মেটাসিলিকেট (Sodium Metasilicate)-১৭.৫%
ফ্লুরোসেন্ট ডাই-অপটিকাল ব্লীচ (Fluorescent dye-optical bleach)-০.০০২%

পদ্ধতি
উপরোক্ত দ্রব্যাদি উত্তমরূপে একত্রে মেশাতে হবে।

ব্যবহারের নিদের্শ
এটি একটি ভালো ডিটারজেন্ট পাউডার। বেশি না কেচেও এতে খুব ভালোভাবে কাপড়-জামা পরিষ্কার করা যায়। কাচার জন্য পরিশ্রম করতে হয় না।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : ডিটারজেন্ট পাউডার তৈরি


উদ্যোগ : ডিটারজেন্ট পাউডার তৈরি
(Detergent Powder)

উপকরণ
সোডিয়াম ট্রিপলিফসফেট (Sodium Triployphosphate)-৩৪.০%
টেট্রা সোডিয়াম পায়রোফসফেট (Tetra Sodium Pyrophosphate)-৬.৬০%
ডিসোডিয়াম হাইড্রোজেন ফসফেট (Disodium Hydrogen Phosphate)-৯.৪০%
সোডিয়াম সালফেট (Sodium Sulphate)-১৩.৯৫%
সোডিয়াম কাবোর্নেট (Sodium Carbonate)-১.৫০%
সোডিয়াম সিলিকেট (Sodium Silicate 1:3,25 ratio)-৩.৯৮%
সোডিয়াম কাবর্ক্সমিথল সেলুলোজ (Sodium Carboxmethyl Cellulose)-০.৫৫%
সোডিয়াম এল্কিল এরিল সালফোনেট (Sodium Alkyl Aryl Sulphonate)-১৮.৭৫%
ফেটি-অ্যামাইড কন্ডেন্সেট (Fatty-amide Condensate)-২.৪৫%
ফ্লুরোসেন্ট ডাই-অপটিকাল ব্লীচ (Fluorescent dye-optical bleach)-০.০০৫%

পদ্ধতি
সূক্ষ্ম চালুনি দিয়ে ছেকেঁ নিয়ে উপরোক্ত দ্রব্যাদি ভালোভাবে মিশ্রিত করতে হবে। বেশি পরিমাণে ডিটারজেন্ট পাউডার তৈরি করতে হলে মিক্সিং (Mixing Machine) এবং শিফটিং মেশিন (Shifting Machine) ব্যবহার করা কর্তব্য।


ডিটারজেন্ট পাউডার তৈরি – দ্বিতীয় প্রণালী
(Detergent Powder – Second Method)

[এই ডিটারজেন্ট পাউডারের সাথে Water Softener বা সাবান মেশাবার প্রয়োজন হয় না]

উপকরণ
সালফেটেড কোকোনাট অয়েল মনোগ্লিসারাইড (Sulphated Coconut Oil Monoglyceride)-৩১.৫%
অ্যানহাইড্রাস সোডিয়াম সালফেট (Anhydrous Sodium Sulphate)-৬৫.৯%
সোডিয়াম ক্লোরাইড (Sodium Chloride)-১.৪৫%
ফ্লুরোসেন্ট ডাই-অপটিকাল ব্লীচ (Fluorescent dye-optical bleach)-০.০০২%

পদ্ধতি
উত্তমরূপে ছেকেঁ নিয়ে উপরোক্ত দ্রব্যাদি একত্রে মেশাতে হবে। বেশি পরিমানে এ ধরনের ডিটারজেন্ট পাউডার তৈরি করতে হলে শিফটিং মেশিন (Shifting Machine) ব্যবহার করা কর্তব্য।

ব্যবহারের নিদের্শ
আগে বস্ত্রাদির বিশেষ দাগযুক্ত অংশ তুলে নিন। তারপর গরম পানিতে ডিটারজেন্ট পাউডার মিশ্রিত করুন। পশমী বস্ত্র বা পোশাক এবং মূল্যবান সূতী বস্ত্রাদি ধোওয়ার জন্য গরম পানি ব্যবহার করা সঙ্গত। লিনোলিয়াম, কাঠের খোদাই করা কারুকায এবং চিত্রিত দেয়াল পরিষ্কার করার জন্যও এই ডিটারজেন্ট পাউডারটি ব্যবহার করা যেতে পারে।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : মরিচা তোলার রং



উদ্যোগ : মরিচা তোলার রং
(Rust Remover Paint)

[বস্ত্রাদি, কম্বল, মাবের্ল বা পোর্সিলিন থেকে মরিচার দাগ, কালির দাগ, ফলের দাগ বা অন্যবিধ দাগ তোলার জন্য।]

উপকরণ
পটাসিয়াম অক্সালেট (Potassium Oxalate) : ৫ কেজি
মেথোসেল (Methocel) : ৫ কেজি
পানি (Water) : ৪০ লিটার



পদ্ধতি
উপকরনগুলো একটি ড্রামে ২৪ ঘন্টা রেখে মাঝে মাঝে নাড়ুন, জেলীর মতো হয়ে এলে কোলাপসিবল টিউবে (Collapsible Tube) প্যাক করুন।

ব্যবহারের নিদের্শ
মরচে বা অন্যবিদ ভাবে দাগ লেগেছে-এরূপ জায়গাটা প্রথমে গরম পানিতে ভিজিয়ে নিন, তারপর রাস্ট রিমুভার পেইন্টটি আস্তে আস্তে ঘষে লাগান। পনেরো মিনিট কাল ঐ অবস্থায় রাখুন, তারপর পরিষ্কার পানিতে ঘষে ঘষে ধুয়ে ফেলুন।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : ড্রাই ক্লীনিংয়ের জন্য মিশ্রণ



উদ্যোগ : ড্রাই ক্লীনিংয়ের জন্য মিশ্রণ
(Dry Cleaning Fluids)

উপকরণ
কাবর্ন টেট্রা ক্লোরাইড (Carbon Tetra Chloride) : ২ কি. ৭০০ গ্রাম
গ্যাসোলিন (Gasoline) : ১ কি. ৮০০ গ্রাম
ক্লোরোফর্ম (Chloroform) : ১ পাইট
পারফিউমিং অয়েল (Perfuming Oil) : ৬০ গ্রাম
অয়েল অফ বার্গামেট (Oil of Bergamot) : ২ গ্রাম
অয়েল অফ রোজমেরী (Oil of Rosemary) : ১ গ্রাম
লবঙ্গ তেল (Oil of Clones) : ১ গ্রাম
তিক্ত বাদামের তেল (Oil of Bitter Almonds) : ১ গ্রাম



পদ্ধতি
উপরোক্ত দ্রব্যাদি Mixer for Liquid Detergents যন্ত্রের মাধ্যমে অথবা অন্য কোন পাত্রে রেখে উত্তমরূপে মিশিয়ে নিতে হবে।

ব্যবহারের নিদের্শ
ড্রাই ব্রাশের সাহায্যে যন্ত্র বা পোশাকের ধুলো ময়লা আগে ঝেড়ে নিতে হবে, তারপর নরম কাপড়ের টুকরো বা তুলো তরল মিশ্রণে ডুবিয়ে বস্ত্র বা পোশাকটি উত্তমরূপে ঘষতে হবে। বস্ত্র বা পোশাকের নীচে একটি পরিষ্কার সাদা কাপড় রাখতে হবে-যাতে অতিরিক্ত তরল পদার্থ শুষে নিতে পারে।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : পরিষ্কার করার মিশ্রণ


উদ্যোগ : পরিষ্কার করার মিশ্রণ
(Cleaning Compound)


উপকরণ
ক্যাস্টাইল সোপ (Castile Soap) : ১২০ গ্রাম
পানি (Water) : ২ পাইন্ট
অ্যামোনিয়া (Conc. Ammonia -26°) : ১২০ গ্রাম
ওলিক এসিড (Oleic Acid) : ৩০ গ্রাম
গ্লিসারিন (Glycerin) : ১২০ গ্রাম
মিথাইল অ্যালকোহল (Methyl Alcohol) : ২৪০ গ্রাম
কাবর্ন টেট্রা ক্লোরাইড (Carbon Tetra Chloride) : ৫ কি. ৪০০ গ্রাম


পদ্ধতি
উত্তপ্ত পানিতে ক্যাস্টইল সোপ অনায়াসেই গলে যায়। সেই উত্তপ্ত পানি ঠান্ডা হয়ে ১০০ ডিগ্রী ফারেনহাইট হলে – ঐ পানির সাথে ওলিক এসিড ও গ্লিসারিন উত্তমরূপে মেশান। তারপর মিথাইল অ্যালকোহল ঢালুন ও মেশান। কাবর্ন টেট্রা ক্লোরাইডসহ বারবার নাড়াচাড়া করতে থাকুন। নাড়তে নাড়তে ইমালশানের মত হবে। যাতেই প্যাক করুন, ওপরে লেবেলে লেখা থাকবে, “ব্যবহার করার আগে উত্তমরূপে নেড়েচেড়ে নিন” (Shake well before using)।

ব্যবহারের নিদের্শ
স্পঞ্জের সাহায্যে ঘষে ঘষে যে সকল দ্রব্যাদি পরিষ্কার করা হয়- সেক্ষেত্রে উপরোক্ত ক্লীনিং কম্পাউন্ডটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। খুব ময়লা জায়গা ঘষার জন্য শক্ত ব্রাশ (Stiff Brush) দিয়ে এই ক্লীনিং কম্পাউন্ডটি ব্যবহার করতে হবে, তারপরে পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে ফেলতে হবে।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


উদ্যোগ : দাগ বা চিহ্ন দূর করার লোশন



উদ্যোগ : দাগ বা চিহ্ন দূর করার লোশন
(Spot & Stain Remover Lotion)

উপকরণ
ন্যাপথা সলভেন্ট (Naphtha Solvent) : ৫৭%
পানি (Water) : ৪০%
সোডা সোপ (Soda Soap) : ০.১%
গ্লিসারিল মনো-ওলিট (Glyceryl Mono-oleate) : ১.৯%
সালফেটেড অয়েল (Sulphated Oil) : ০.৩%



পদ্ধতি
৫০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপে গ্লিসারিল মনো-ওলিট ও ন্যাপথা সলভেন্ট উত্তমরূপে মিশিয়ে নিতে হবে। অপর একটি পাত্রে পানি ৬০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপে গরম করে বেশ কিছুক্ষণ নেড়ে ন্যাপথা সলভেন্ট মিশ্রণটি ঢালতে হবে। তারপর ঠান্ডা না হওয়া পযর্ন্ত নাড়াচাড়া করতে হবে।

ব্যবহারের নিদের্শ
যে অংশের দাগ দূর করতে হবে, সেই অংশের নীচে একটি কাপড়ের প্যাড রাখুন, এবং অপর একটি পরিষ্কার কাপড়ের টুকরো বা তুলো উপরের লোশন ভিজিয়ে নিয়ে দাগের জায়গায় ধীরে ধীরে ঘষতে থাকুন এবং পরে জায়গাটি ধুয়ে নিন। এই লোশনটি গন্ধহীন। তাছাড়া এটি ব্যবহারে মূল্যবান বস্ত্রাদির কোনরূপ ক্ষতি হবে না বা রং নষ্ট করবে না।

তথ্যসূত্র : কোলকাতা থেকে প্রকাশিত ‘কুটীর শিল্প’ গাইড।


ব্লগটির স্পন্সর



ই-মেইলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নতুন পোষ্ট পেতে চাইলে

ই-মেইল সাবস্ক্রিপশন

Enter your email address:

Delivered by FeedBurner

ক্যাটাগরীসমূহ

চ্যাটরুম


Try Relay: the free SMS and picture text app for iPhone.

জনপ্রিয় পোষ্টসমূহ

ব্লগটি মোট পড়া হয়েছে

বাঙলা ব্লগ. Powered by Blogger.

- Copyright © মেহেদী হাসান-এর বাঙলা ব্লগ | আমার স্বাধীনতা -Metrominimalist- Powered by Blogger - Designed by Mahedi Hasan -

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...